শিরোনাম:
ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
Swadeshvumi
শুক্রবার ● ১০ নভেম্বর ২০২৩
প্রচ্ছদ » জাতীয় » যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মত দিয়েছেন: সিইসি
প্রচ্ছদ » জাতীয় » যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মত দিয়েছেন: সিইসি
১১৭ বার পঠিত
শুক্রবার ● ১০ নভেম্বর ২০২৩
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

যথাসময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মত দিয়েছেন: সিইসি

---
# আগামী সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা করবো
নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, সাংবিধানিক ধারাবাহিকতা রক্ষায় যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। আর সেই লক্ষ্যে আগামী সপ্তাহের যে কোন দিন সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার জন্য তারা রাষ্ট্রপতির সম্মতি পেয়েছেন।

আজ দুপুরে (বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর) রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিনের সঙ্গে সাক্ষাতের পর বঙ্গভবনের সামনে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে রাষ্ট্রপতির সাথে প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠক করেন সিইসি’র নেতৃত্বে ৬ সদস্যের কমিশন। বৈঠকে নির্বাচন কমিশনার আহসান হাবিব খান, বেগম রাশেদা সুলতানা, মোহাম্মদ আলমগীর, মো. আনিছুর রহমান এবং সচিব মো. জাহাংগীর আলম উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে বেরিয়ে বঙ্গভবনের সামনে সাংবাদিকদের কাছে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘নির্ধারিত সময় ও পদ্ধতিতে নির্বাচন করতে নির্বাচন কমিশন বদ্ধপরিকর। নির্বাচনের তফসিল নিয়ে এখনো পুরোপুরি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। এরপর আমরা কমিশনের বৈঠকে বসে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবো’।
---
রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলাপ প্রসঙ্গে সিইসি বলেন, ‘সংসদ নির্বাচনের সার্বিক প্রস্তুতি সম্পর্কে আমরা রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করেছি। সব শুনে তিনি সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। রাষ্ট্রপতি বলেছেন, নির্বাচন হচ্ছে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় জনগণের মতামত প্রতিফলনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। তিনি আশা প্রকাশ করেছেন- আসন্ন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে। সুশৃঙ্খলভাবে হবে। আমরা যেন সংবিধান সম্মতভাবে সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠান করি। তিনি আমাদের আশ্বস্ত করেছেন যে, অবাধ নির্বাচনের স্বার্থে সব ধরনের সহযোগিতা দিতে প্রস্তুত রয়েছেন। আমরা ওনাকে জানিয়েছি আমাদের ওপর সাংবিধানিকভাবে যে দায়িত্ব আরোপিত হয়েছে, সেখানে যে বাধ্যবাধকতা রয়েছে আমরা সে অনুযায়ী নির্ধারিত সময় ও পদ্ধতিতে নির্বাচন করতে বদ্ধপরিকর’।

রাষ্ট্রপতি আরও বলেছেন, দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে হলে দেশের গণতান্ত্রিক ধারাকে অব্যাহত রাখতে হবে। নির্বাচন কমিশনের একার পক্ষে সুষ্ঠু নির্বাচন করা সম্ভব নয় উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, একটি সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচনের জন্য প্রয়োজন নির্বাহী বিভাগসহ জনগণের সক্রিয় সহযোগিতা। রাজনৈতিক দলগুলোকে এ লক্ষ্যে এগিয়ে আসতে হবে’। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সাংবিধানিক রীতি-নীতি ও বিধি-বিধান অনুসরণপূর্বক কমিশনকে সাহসিকতা ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

সিইসি বলেন, ‘আমরা রাষ্ট্রপতিকে বলেছি সুন্দর ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে আমরা সকল রাজনৈতিক দলের সংলাপ করেছি। সরকার এবং জনগণের সহযোগিতা নিরবিচ্ছিন্নভাবে কামনা করছি। আমরা ওনাকে আশ্বস্ত করেছি যে আমরা আশাবাদী। আমরা আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সকলে সহযোগিতা সাংবিধানিক যে বাধ্যবাধকতা আছে ওর আলোকে যথাসময়ে নিষ্পন্ন করতে সমর্থ হবো। আমরা রাষ্ট্রপতিকে আমাদের সার্বিক প্রস্তুতি সম্পর্কে অবহিত করেছি। উনি শুনেছেন এবং সন্তুষ্ট হয়েছেন’।

---

নির্বাচনের সম্ভাব্য সময়সূচি নিয়ে কোন আলোচনা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘আমরা ওনাকে জানিয়েছি যে নির্বাচন অত্যাসন্ন। কেবল শেষ যেটা সময়টা রয়েছে সেটি আমরা ওনাকে জানিয়েছি৷ আমরা জানিয়েছি আমরা এখনো পুরোপুরি সিদ্ধান্ত নিইনি। আমরা আজকে ওনার সঙ্গে মতবিনিময় করে গেলাম। আমরা নিজেদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবো’।

চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেন, রাজনৈতিক সংকট নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তাদের কোনো কথা হয়নি। রাজনৈতিক বিরোধিতা এখনও রয়েছে। তাই যারা ভোটের বিরোধিতা করছে তাদের উদ্দেশ্যে কিছু বলবেন কিনা জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘এ মুহূর্তে আমি এ বিষয় কিছু বলবো না’।

এদিকে নির্বাচনী রোডম্যাপ অনুযায়ী, আগামী সপ্তাহের যে কোন দিন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা এবং নির্বাচনের সব ধরনের প্রস্তুতি সেরে নিয়েছে কমিশন। ইসি সচিব জাহাংগীর আলম বুধবার সাংবাদিকদের জানান, বর্তমান রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যেও ইসি নির্বাচনের পরিবেশ প্রতিকূল মনে করছে না। নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে ও ভোটারদের নির্বিঘ্নে ভোটদান নিশ্চিত করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। নির্বাচনকে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার লক্ষ্যে নির্বাহী বিভাগসহ নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট সব সংস্থাকে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দেয়া হয়েছে।



বিষয়: #



আর্কাইভ