শিরোনাম:
ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
Swadeshvumi
শনিবার ● ২৫ মে ২০২৪
প্রচ্ছদ » জাতীয় » ৩য় ধাপে ১১১ ও ৪র্থ ধাপে ৫৫ উপজেলায় চলছে ভোটের আনুষ্ঠানিকতা
প্রচ্ছদ » জাতীয় » ৩য় ধাপে ১১১ ও ৪র্থ ধাপে ৫৫ উপজেলায় চলছে ভোটের আনুষ্ঠানিকতা
৪৫ বার পঠিত
শনিবার ● ২৫ মে ২০২৪
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

৩য় ধাপে ১১১ ও ৪র্থ ধাপে ৫৫ উপজেলায় চলছে ভোটের আনুষ্ঠানিকতা

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

 

---

 

# এই দুই ধাপে ১৩ মে ও ২০ মে প্রচারের মাঠে প্রার্থীরা 

# বাড়ছে আচরণবিধি লঙ্ঘনের ঘটনা 

# ২য় ধাপের মঠবাড়িয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী রিয়াজের প্রার্থিতা বাতিল

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

 

ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তৃতীয় ও চতুর্থ ধাপে ভোটের প্রচার চালাচ্ছেন প্রার্থীরা। তৃতীয় ধাপে ২৯ মে ১১ উপজেলায় আর ৫ জুন চতুর্থ ধাপে ৫৫টি উপজেলায় ভোট গ্রহণ করা হবে। নির্বাচন উপলক্ষ্যে এসব উপজেলার নির্বাচনি এলাকায় ভোটের দিন এরই মধ্যে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে চিঠি পাঠিয়ে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ রক্ষায় ওইসব উপজেলায় মাঠে দায়িত্ব পালন করছেন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

 

তৃতীয় ধাপের নির্বাচনে ১১১ উপজেলায় মধ্যে ৯ জেলার ২১ উপজেলায় ভোট হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)। বাকি ৯০ উপজেলার ভোট হবে ব্যালট পেপারে। ১৩ মে প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে প্রচারের মাঠে রয়েছেন ১ হাজার ৪৩৪ জন প্রার্থী। তাদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৪৮৫ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫৭১ জন এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩৭৮ জন। এসব উপজেলায় তিনপদে বিনাভোটে নির্বাচিত হয়েছেন ৬ জন। তারমধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন নির্বাচিত হয়েছেন। 

 

প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের মতো চলমান দুই ধাপের নির্বাচনি প্রচারেও ঘটছে আচরণবিধি লঙ্ঘনের নানা ঘটনা। পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় আচরণবিধি লঙ্ঘনের দায়ে ওই উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী রিয়াজ উদ্দিন আহমেদের প্রার্থিতা গতকাল বৃহস্পতিবার বাতিল করেছে ইসি। ইসির তলবে হাজির হয়ে ওই প্রার্থীর দেওয়া জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় তার প্রার্থিতা বাতিল করা হয় বলে গণমাধ্যমকে জানান ইসি সচিব মো. জাহাংগীর আলম। 

 

চতুর্থ ধাপের ৫৫ উপজেলায় নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ছিলো ৯ মে। মনোনয়নপত্র বাছাই করা ১২ মে। মনোনয়নপত্র বাতিলে বিরুদ্ধে আপিল চলে ১৩ থেকে ১৫ মে পর্যন্ত। আপিল নিষ্পত্তি হয় ১৬ থেকে ১৮ মে পর্যন্ত। ১৯ মে ছিলো প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। আর ২০ মে প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে ভোটের মাঠের প্রচারে প্রার্থীরা।

 

চার ধাপের অনুষ্ঠিত ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এরই মধ্যে দুই ধাপের নির্বাচনে ভোটের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হয়েছে।

 

নির্বাচন কমিশনের তফসিল অনুযায়ী, প্রথম ধাপে দেশের ১৩৯ উপজেলায় ভোটগ্রহণ হয় গত ৮ মে, ভোটের হার ছিলো ৩৬.১৮ শতাংশ। দ্বিতীয় ধাপে ১৫৬ উপজেলায় ভোট হয় ২১ মে। ভোটের হার ছিলো ৩৭ দশমিক ৬৭ শতাংশ। বিগত দুই ধাপের নির্বাচনেই ভোটের হার ৪০ শতাংশের নিচে হওয়ায় তা অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল। 

 

 



বিষয়: #



আর্কাইভ